সমাজের আলো : একই পরিবারের আওয়ামী লীগ নেতা চাচা নজরুল ইসলাম ও তার ভাতিজা রাসেল কবির হত্যা মামলার পলাতক আসামী মতিয়ার রহমানকে গ্রেফতার করেছে সাতক্ষীরা থানা পুলিশ। বৃহস্পতিবার সকালে সাতক্ষীরা সদর উপজেলার কুচপুকুর গ্রামের মতিয়ারকে একই উপজেলার কুশখালি থেকে গ্রেফতার করা হয়। সাতক্ষীরা সদর থানার ওসি মোঃ দেলোয়ার হোসেন জানান, ২০১৬ সালে কুচপুকুর গ্রামের আওয়ামী লীগ নেতা নজরুল ইসলাম প্রকাশ্য দিবালোকে সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিজের বাড়ির পাশেই খুন হন। অপরদিকে তার ভাতিজা রাসেল কবির ২০১৭ সালের ১০ এপ্রিল সাতক্ষীরা শহরের রাজারবাগান এলাকায় সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত হন। এই দুই হত্যা মামলা সহ আরও ৬ মামলার গ্রেফতারি পরোয়ানা ভুক্ত আসামী মতিয়ার রহমানকে ৪ বছর পলাতক অবস্থা থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এদিকে চারটি মামলায় ৫০ বছরের সাজাপ্রাপ্ত ঝালকাঠীর ইলিয়াস খান ওরফে এজাজ খানকে গ্রেফতার করেছে সাতক্ষীরার গোয়েন্দা পুলিশ। গ্রেফতারের পর আদালতের মাধ্যমে রিমান্ডে এনে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। জেলা গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক ইয়াসিন আলম চৌধুরী জানান, এজাজ খানের বিরুদ্ধে বরিশালে একটি হত্যা মামলায় ৩০ বছর, ঝালকাঠীর একটি মাদক মামলায় ৬ বছর, খুলনার একটি মাদক মামলায় ৫ বছর এবং ফরিদপুরের একটি মাদক মামলায় ৯ বছর সহ ৫০ বছরের কারাদন্ড রয়েছে। এজাজ সাতক্ষীরায় এসে প্রতারক বাদশা মিয়ার সাথে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক করে বিভিন্ন নামে চলাফেরা করতো। একইসঙ্গে সে এ এলাকায় নতুন করে মাদক ব্যবসা শুরু করে। পুলিশ পরিদর্শক আরও জানান, তাকে ৫২ পিস ইয়াবা সহ গ্রেফতার করে এখন রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এসব তথ্য দিয়েছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *