যশোর প্রতিনিধি : গত ৪ ঘন্টার ব্যবধানে সড়ক দুর্ঘটনায় দুইজনসহ ৫ জনের অপমৃত্যু হয়েছে। তারা হলো, ফরিদপুর জেলার মধুখালী থানার গোপালদী গ্রামের মণীন্দ্রনাথ কর্মকারের ছেলে বাসু কর্মকার (৪৫), যশোর শহরের শংকরপুর ছোটনের মোড় এলাকার হযরত আলী তালুকদারের ছেলে ইউসুফ (৫২), বেনাপোলের বালুন্ডা জেলেপাড়া এলাকার শ্রীরাম মন্ডলের মেয়ে এসএসসি পরীক্ষার্থী তন্বী মন্ডল, যশোর সদর উপজেলার চাউলিয়া গ্রামের মো. আব্বাস আলী (৫৫), ও যশোর শহরের সিটি কলেজ পাড়ার ফরিদ হোসেনের স্ত্রী নাইমা খাতুন (২০)।

বুধবার (৩ মে) সকালে যশোর মাগুরা সড়কের কোদলিয়া নামক স্থানে বাস দুর্ঘটনায় বাসু কর্মকার নিহত হন। এসময় কমবেশি ২০ জন আহত হলে ৪ জনকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বাসু কর্মকার শহরের ব্যস্ত এলাকায় ভাড়া বাসায় বসবাস করতেন। এদিকে বুধবার (৩ মে) সকালে যশোর শহরের বকচর র‌্যাব অফিসের সামনে বাসের চাপায় ইউসুফ (৫২) নিহত হয়েছে। বেনাপোলে বালুন্ডা গ্রামে এসএসসি পরীক্ষার্থী তন্বী মন্ডল মায়ের উপর অভিমান করে বুধবার সকালে ঘরের ফ্যানের সাথে ওড়না পেচিয়ে আত্মহত্যা করে।
অপরদিকে যশোর সদর উপজেলা চাউলিয়া গ্রামের আব্বাস আলী ২৪ এপ্রিল ঘাস মারা ওষুধ খেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েন। চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার (৩ মে) সকালে যশোর জেনারেল হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেছেন। স্বামীর ওপর অভিমান করে শহরের সিটি কলেজ পাড়ার নাইমা খাতুন গলায় ফাঁস দিয়ে বুধবার সকালে আত্মহত্যা করেছেন। পারিবারিক কলহের কারণে নাইমা খাতুন আত্মহত্যা করেছে।
যশোর কোতয়ালী থানার ডিউটি অফিসার শরিফ আল মামুন সড়ক দুর্ঘটনায় দুইজনসহ ৫জনের অপমৃত্যু মামলা হয়েছে বলে জানিয়েছেন।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *