সমাজের আলো : সাতক্ষীরার ভোমরায় পবিত্র ঈদ-উল আযহা উপলক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের চাউল বিতরণে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। জনপ্রতি ১০ কেজি দেওয়ার কথা থাকলেও কেউ ৪ কেজি, কেউ ৫ কেজি আবার কেউ ৬ পেয়েছেন। এমনটায় জানিয়েছেন ভোমরা ইউনিয়নের বিভিন্ন ওয়ার্ডের অসহায় পরিবারের সদস্যরা। যদিও ইউপি চেয়ারম্যান এধরনের অনিয়মের কথা অস্বীকার করেছেন। ভোমরা ইউনিয়ন সূত্রে জানা গেছে, পবিত্র ঈদ উল আযহা উপলক্ষ্যে ভোমরায় ১৮ হাজার ৫৫০ কেজি(৩৭১ বস্তা) চাউল বরাদ্দ দেওয়া হয়। যার ইউনিয়নের ১৮৫৫ জনের মধ্যে মাথাপিছু ১০ কেজি হারে বিতরণের কথা রয়েছে। ১৯ জুলাই ইউনিয়নে এ চাউল বিতরণ করা হয়। তবে অধিকাংশই পেয়েছেন ৪,কেজি, ৫ কেজি ও ৬ কেজি হারে। খবর নিয়ে জানা গেছে ভোমরা ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডে হাড়দ্দহা গ্রামের শরিফুল ইসলামের পুত্র আলাউদ্দিন পেয়েছেন ৫ কেজি,২নং ওয়ার্ডের পদ্ম শাখরা গ্রামের মাজেদ মোড়লের পুত্র আসাদুল ইসলাম পেয়েছেন ৪ কেজি, ৪নং ওয়ার্ডের লালচাঁদের পুত্র আবুুল কাশেম পেয়েছেন ৪ কেজি। ৫নং ওয়ার্ডের নবাতকাটি গ্রামের মারুফ শেখের স্ত্রী শাকিলা পেয়েছেন ৬ কেজি। এছাড়া হাবিবুর, আসলাম ও শরিফুল ৩ জনে পেয়েছেন ২০ কেজি চাউল। এবিষয়ে ভোমরা ইউপি চেয়রাম্যান ইরাঈল গাজী বলেন, প্রধানমন্ত্রীর উপর বিতরণ কোন অনিয়মের সুযোগ নেই। এক মুষ্টি চাউলও কোন ইউপি সদস্যদের বাড়ি নিয়ে যেতে দেওয়া হয়নি। তবে কার্ডধারীদের বিতরনের পর কিছু বাদ মানুষের মধ্যে অবশিষ্ট চাউল ভাগ করে দেওয়া হয়েছে।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *