সকল কৃষক ভাইকে শ্রাবণের ঝিরিঝিরি বৃষ্টির শুভেচ্ছা জানিয়ে শুরু করছি আজকের আয়োজন।
শ্রাবণ মাস আমন ধানের চারা রোপণের ভরা মৌসুম। 32 থেকে 42 দিন বয়সের চারা মূল জমিতে রোপণ করতে হবে। চারা রোপণের পূর্বে আবাদি জমি আড়াআড়িভাবে তিন থেকে চারটি চাষ ও ভালোভাবে মই দিয়ে তকতকে কাদাময় করে নিতে হবে। শেষ চাষে বিঘা প্রতি অর্থাৎ 33 শতক এর এক টন বা 1000 কেজি পচা গোবর বা জৈব সার, 10 কেজি টিএসপি, 7 কেজি এমওপি এবং 12 কেজি জিপসাম সার প্রয়োগ করতে হবে । বীজতলা থেকে চারা আলতোভাবে উঠিয়ে মূল জমিতে প্রতি গোছায় 1 থেকে 2 টি সুস্থ সবল চারা রোপণ করতে হবে। চারা অবশ্যই সারিতে রোপণ করতে হবে এবং প্রতি 8 থেকে 10 গোছা পরপর 15 ইঞ্চি ফাকা রাখতে হবে। যেটাকে লগো পদ্ধতি বলা হয়।
চারা রোপণের 10 থেকে 15 দিন পর প্রথম কিস্তি ইউরিয়া উপরি প্রয়োগ করতে হবে বিঘাপ্রতি সাত কেজি হারে। প্রথম কিস্তি প্রয়োগের 15 দিন পর দ্বিতীয় কিস্তি প্রয়োগ করতে হবে এবং দ্বিতীয় কিস্তি প্রয়োগের 15 দিন পর তৃতীয় কিস্তি বা শেষ কিস্তি ইউরিয়া উপরি প্রয়োগ করতে হবে।
LCC ব্যবহার করে ইউরিয়া প্রয়োগ করলে 10 থেকে 15 % ফলন বৃদ্ধি পায়।
এছাড়া গুটি ইউরিয়া ব্যবহার করলে চারা রোপণের দশ দিন পর চার বছর মাঝে 1.8 গ্রাম ওজনের একটি ব্যবহার করতে হবে।গুটি ইউরিয়া ব্যবহারের ফলন 45 % পর্যন্ত বৃদ্ধি পায়। ধান ক্ষেতের পোকা নিয়ন্ত্রণের জন্য ধানের জমিতে ডাল পুঁতে দিয়ে পাখি বসার ব্যবস্থা করতে হবে। যাতে পাখি পোকা ধরে খেতে পারে। তো কৃষক-কৃষাণী ভাই-বোনেরা আজকের মতো এই পর্যন্ত ।সকলের সুস্বাস্থ্য ও ভালো ফলনের আশা ব্যক্ত করে আজকের মত বিদায় নিচ্ছি।

জহির আলিম
পরিচালক
JZA agro farm
বেউলা, আশাশুনি, সাতক্ষীরা।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *