সমাজের আলো : দূর্গাপূজা চলাকালে মেয়েদের উত্ত্যক্ত করার প্রতিবাদ করতে গিয়ে দুর্বৃত্তদের হাতুড়িপেটার শিকার হয়েছেন তালা উপজেলার জালালপুর গ্রামের একজন গার্মেন্টস কর্মী। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে প্রথমে তালা হাসপাতালে ও পরে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।হাতুড়ি ও লোহার রডে আঘাতপ্রাপ্ত শামিউল গাজী জালালপুরের একটি গার্মেন্টসের কর্মচারী। শনিবার রাতে সেখানে কর্মরত থাকা অবস্থায় তাকে পিটিয়ে আহত করা হয়।

শামিউল গাজী জানান, প্রতিমা বিসর্জনের সময় তিনি ও তার সহকর্মীরা উৎসব এলাকায় উপস্থিত ছিলেন। এসময় কয়েকটি মেয়ে ছুটে এসে তাদের জানায়, তাদেরকে উত্যক্ত্য করছে কয়েক যুবক। এমনকি তাদের হাত ধরে টানাটানি করারও চেষ্টা করছে। তিনি জানান, এ খবর পেয়ে আমরা মেয়েগুলিকে রক্ষা করে নিকটেই থাকা পুলিশে খবর দেই। সেখানে উত্ত্যক্তকারীরা উপস্থিত হয়ে ক্ষমা চেয়ে চলে যায়। এর পরদিন সন্ধ্যায় তিনি তার কর্মস্থলে যখন কাজ করছিলেন তখনই হাতুড়ি ও লোহার রড নিয়ে এলাকার ঝন্টু মোড়ল ও লিয়ন মোড়ল সহ ৫-৬ জন যুবক এলোপাতাড়িভাবে মারপিট করে। এতে তার মাথা ও দেহের বিভিন্ন স্থানে রক্তক্ষরণ হয়। শামিউল গাজী এখনও সাতক্ষীরা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তিনি জানান, হামলাকারীরা এতটাই দুর্ধর্ষ যে আমি মামলা করলে আমাকে তারা মেরে ফেলতে পারে। তবে বিষয়টি পুলিশকে জানিয়েছি।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *